এন আই ডি কার্ড, What is NID Card

এন আই ডি কার্ড হল বাংলাদেশী নাগরিকদের জন্য একটি বাধ্যতামূলক পরিচয়পত্র (National ID Card), যা ১৮ বছর পূর্ণ হওয়ার পর সরকারি ভাবে আপনার এই NID তৈরি করতে হয়। NID এর ফুল মিনিং হচ্ছে National ID Card যাকে শর্টকার্টে NID কার্ড বলা হয়ে থাকে। NID Card তৈরি ও সরবরাহ করাসহ এর নানান তথ্য হালনাগাদ করে থাকতো বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন, তবে ১২ জুন ২০২৩ এটা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেওয়া হয়। নথিভুক্ত করণ ও আইডি কার্ড সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান হল বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন।

English Queries:
nid, nid bd, nid service, nid card download, nid card, nid card chek, nid service bangladesh, nid download

এন আই ডি কার্ডের মূল উদ্দেশ্য হল বাংলাদেশী নাগরিকের পরিচয় নিশ্চিত করা। এবং এই কার্ড সরাসরি গভার্নমেন্টের প্রত্যেকটা কাজের সাথে সরাসরি সম্পৃক্ত তাছাড়া, ভোটার তালিকা তৈরি, সরকারি ও বেসরকারি সেবা গ্রহণ, ব্যাংকিং লেনদেন, বিদেশে ভ্রমণ ইত্যাদির সকল কাজেই এই কার্ড প্রয়োজন বা এই কার্ড থেকেই সরাসরি তথ্য নিয়ে থাকে। ১৮ বছরের নিচে বয়স হলে এই কাজগুলো জন্মনিবন্ধনের কাগজ বা স্কুল সার্টিফিকেট দিয়ে করা হয়।

NID Card

এন আই ডি কার্ডের আকার ৮৫ মিমি x ৫৪ মিমি 

এন আই ডি কার্ডে নিম্নলিখিত তথ্যগুলো থাকেঃ

  • নাগরিকের নাম
  • জন্ম তারিখ
  • লিঙ্গ
  • পিতা ও মাতার নাম
  • স্বামী/স্ত্রীর নাম (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)
  • ঠিকানা
  • ছবি
  • স্বাক্ষর
  • আইডি নম্বর
এন আই ডি কার্ডের মেয়াদ ১০ বছর। মেয়াদ শেষ হওয়ার পর নতুন করে আইডি কার্ড সংগ্রহ করতে হতো। তবে বর্তমামে স্মার্টকার্ড আসার পর তা আজীবন করা হয়েছে। 

Nid Card Download

এন আই ডি কার্ডের জন্য আবেদন করার জন্য নিচে দেওয়া কাগজপত্র প্রয়োজন:
  • জন্ম সনদ
  • শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ
  • জাতীয় পরিচয়পত্র (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)
  • ছবি
  • স্বাক্ষর
এন আই ডি কার্ডের আবেদনপত্র বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করা যাবে। আবেদনপত্র পূরণ করে সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাচন অফিসে জমা দিতে হবে। তবে বর্তমানে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছে দায়িত্ব চলে যাওয়াই নির্দিষ্ট ভাবে বলতে পারছিনা কোন ওয়েবসাইট থেকে এক্সেস পাবেন। আপনি গুগল সার্চ করতে পারেন "Nid Registration Online" তাহলে আশা করি পাবেন। 

এন আই ডি কার্ড


এন আই ডি কার্ড একটি গুরুত্বপূর্ণ জিনিস। এটা আপনার পরিচয় নির্দিষ্ট করে। তাই এটা প্রত্যেক বাংলাদেশী নাগরিকের কাছে থাকা উচিত।


Next Post Previous Post